বাগেরহাটে আরো ১ নারীর লাশ উদ্ধার, এখনও নিখোঁজ ১৭

রূপসী বাংলা নিউজ ॥

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলার পানগুছি নদীতে ট্রলারডুবির ঘটনায় আরো এক নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় নারী ও শিশুসহ এখনও ১৭ জন নিখোঁজ রয়েছে। দুর্ঘটনার দ্বিতীয় দিন বুধবার সকাল থেকে নিখোঁজদের সন্ধানে উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে

ফায়ার সার্ভিস, নৌবাহিনী ও কোস্টগার্ড। সকালেই পানগুছি নদী থেকে অজ্ঞাত পরিচয় এক নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়। মোরেলগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের হিসাব অনুযায়ী এখনও নারী ও শিশুসহ ১৭ জন নিখোঁজ রয়েছে। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার ছোলমবাড়িয়া খেয়াঘাট থেকে প্রায় ৮০ জন যাত্রী নিয়ে মোরেলগঞ্জ পুরাতন থানার ঘাটে যাওয়ার পথে ট্রলারটি ডুবে যায়। গতকালই মা-মেয়েসহ চার নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়।

এদিকে ট্রলার ডুবির ২২ ঘন্টা পেরিয়ে গেলেও নিখোঁজদের সন্ধান না পেয়ে নদী পাড়ে ভিড় করছেন স্বজনরা। উদ্ধারকারী বিভিন্ন বাহিনীর পাশাপাশি নিজেরাও ট্রলার নিয়ে নদীতে খুঁজে ফিরছেন নিখোঁজ স্বজনদের।

নিখোঁজদের স্বজনরা জানান, প্রায় ২৪ ঘন্টা পেরিয়ে গেছে। এখনও আমরা ট্রলারডুবিতে নিখোঁজদের সন্ধান পাইনি।  আমরা তাদের জীবিত পাওয়ার আশা ছেড়ে দিয়েছি। এখন তাদের লাশগুলো পেতে নদী পাড়ে অপেক্ষা করছি।

উদ্ধার কাজে রয়েছে ফায়ার সার্ভিসের খুলনা, বাগেরহাট, মোরেলগঞ্জ ও বরিশাল ইউনিটের চারটি দল । এছাড়া নৌবাহিনীর ২টি ডুবুরি দল ও কোস্টগার্ড সদস্যরা উদ্ধার অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে।

বাগেরহাট ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারি পরিচালক (ডিএডি) মাসুদুর রহমান সরদার জানান, সকাল থেকে সবগুলো বাহিনী উদ্ধার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। পানগুছি নদীর দুর্ঘটনাস্থল থেকে দুই পাশের ১০ কিলোমিটার জুড়ে তল্লাশি করা হচ্ছে। যেহেতু নদীতে জোয়ার-ভাটার তীব্র স্রোত রয়েছে তাই বিস্তৃত এলাকা জুড়ে তল্লাশি করা হচ্ছে। নিখোঁজদের সন্ধান না পাওয়া পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Check Also

এক বজ্রপাতে ৬ স্কুলছাত্রী আহত!

ময়মনসিংহের ভালুকায় এক বজ্রপাতে ৬ স্কুলছাত্রী আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা আহতদের …

Powered by themekiller.com