গোপালগঞ্জে প্রায় ৩’শত শীতার্ত ও দুস্থ: মানুষের মাঝে কম্বল বিতরন

 

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি :

 

আছিয়া খাতুন। বয়স প্রায় ৭৫। বয়সের ভারে চলাফেরা করতে হয় কষ্ট। সেই সাথে গত কয়েক দিনের তীব্র শীত কষ্টকে বাড়িয়ে দিয়েছে দূর্ভোগে। সামান্য কাথা দিয়ে নিবারন করতে পারছিলেন না শীত। কিন্তু তাদের চোখের আলো  হয়ে কম্বল দিলেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোখলেসুর রহমান সরকার।

 

মঙ্গলবার রাত থেকে গভীর রাত পর্যন্ত জেলার বিভিন্ন স্থানে ঘুরে ঘুরে শীতার্ত ও দুস্থ: মানুষের মাঝে কম্বল বিতরন করেন তিনি। নিজেরে হাতে তাদের গায়ে কম্বল জড়িয়ে দেন।

 

আছিয়া খাতুন বলেন, এক দিকে বয়স অন্য দিয়ে প্রচন্ড শীত পড়ায় চলাফেরা একদম দায় হয়ে পড়েছিল। পরিবারের ভরন পোষন দিয়ে দিন মজুর ছেলের পক্ষে শীতের কাপর কেন ছিল কষ্টকর। তাই পরিবারের সবাই শীতের কষ্ট সহ্য করে দিন যাপন করছিলাম। কিন্ত জেলা প্রশাসক ছেলের মত করে শীতের কেষ্ট থেকে বাঁচাতে কম্বল দিয়ে গেলেন। এখন আর শীতের কষ্ট পেতে হবে না। আমি তাকে দোয়া করি তিনি যে যেন আরো বড় হয়।

 

শুধুই আছিয়া খাতুন নয় মোশারফ শেখ, জব্বার সিকদার, আসমা খাতুন জানান, সামন্য আয় দিয়ে নিজেদের পেট ই চলে না আর শীতের কাপড়। কয়েকদিন ফেলে রাথা কাগজে আগুন জ্বালিয়ে শীত নিবারন করেছি। কিন্তু আমাদের জেলা প্রশাসক সাহেব নিজে বাসায় এসে এসে আমাদের কম্বল দিয়ে গেছেন। ফলে আমার কিছুটা হলেও শীতের হাত থেকে বাঁচতে পারব। সব জেলায়ি এমন জেলা প্রশাসক থাকলে কাউকেই কষ্ট পেতে হবে না।   

 

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানাগেছে, গোপালগঞ্জে প্রায় ৩’শত শীতার্ত ও দুস্থ: মানুষের মাঝে কম্বল বিতরন করা হয়। জেলা শহরের বিভিন্ন বস্তি, আশ্রয়ন প্রকল্প, বাসষ্টান্ডসহ বিভিন্ন স্থানে ঘুরে ঘুরে এ কম্বল বিতরন করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোখলেসুর রহমান সরকার। এসময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো: জাহাঙ্গীর হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) শান্তিমনি চাকমাসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। তবে তা ছিল প্রয়্জেনের তুলনায় সামান্য।

 

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোখলেসুর রহমান সরকার জানান, বিভিন্ন সময় রাস্তায় বের হয়ে দুস্থ: মানুষের শীতের দূর্ভোগ দেখি। সরকারীভাবে বরাদ্ধ পাওয়া এসব কম্বল আমরা উপজেলায় পাঠিয়েছি। আর যেসব কম্বল বাড়তি ছিল তা বিভিন্ন স্থানে গিয়ে বিতরন করেছি। সামন্য কাথা দিয়ে প্রচন্ড শীত এসব মানুষের পক্ষে নিবারণ করা সম্ভব নয়। আমাদের কাছে থাকা পর্যন্ত কম্বল বিতরন চলবে।

 

তিনি আরো বলেন, শুধু সরকারী ভাবেই নয় বৃত্তবানদের এগিয়ে আসা উচিত। তাহলে এই শীতে কোন দুস্থ: মানুষ শীতে কষ্ট পাবে না। আমার সকলেই মিলে মিশে শীতের কষ্ট লাঘব করতে পারব।

 

 

 

Check Also

গোপালগঞ্জে শুরু হয়েছে বাংলাদেশ ক্যাডেট কোর (বিএনসিসি) এর রেজিমেন্ট ক্যাম্পিং

  গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি :   গোপালগঞ্জে শুরু হয়েছে বাংলাদেশ ক্যাডেট কোর (বিএনসিসি) এর রেজিমেন্ট ক্যাম্পিং। …

Powered by themekiller.com