মাদকের ‘হাট’

মাদক ব্যবসায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কালীবাড়ী ও রাজারবাগ এলাকার নামডাক বহুদিনের। পোঁটলা থেকে শুরু করে ইয়াবা ব্যবসা সবই এখানে জমজমাট। দিনের বেলায়ও মাদক ব্যবসায়ীদের অবাধ বিচরণ। সংবাদকর্মী পরিচয়ে এলাকায় পা রাখতেই এমনটা জানান এলাকাবাসী। নিজে ঘুরেও এমনটাই দেখা গেছে। দক্ষিণ রাজারবাগের ঘিঞ্জি এলাকার অলিগলিতে ছোটখাটো অসংখ্য দোকানপাট। মূলত এগুলোতেই চলে মাদকবাণিজ্য। অল্প সময়ে ‘সহজ’ অর্থের লোভে এ ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ছেন এখানকার অনেক বাসিন্দা ও দোকানদার। বাদ যায় না নারী-শিশুও। আর নিয়মিত পকেট গরম করা হয় বলে প্রশাসনও নীরব। অস্বস্তিতে কেবল ওয়ার্ডের সাধারণ বাসিন্দারা।
রাজধানীর আহম্মদবাগ, মায়াকানন, বৌদ্ধমন্দির, সবুজবাগ, কদমতলা, পূর্ব বাসাবো, উত্তর রাজারবাগ, দক্ষিণ রাজারবাগ, শাপলাকানন, উত্তর মুগদা, সবুজ কানন নিয়ে গঠিত এ ওয়ার্ড। প্রায় দেড় লাখ জনসংখ্যা ও ৪০ হাজার ভোটার অধ্যুষিত এ আবাসিক এলাকাগুলোর গলার কাঁটা মাদক ব্যবসা। কদমতলার বসিন্দা শিহাব তালুকদার বলেন, আমাদের ওয়ার্ডে তেমন কোনো সমস্যা নেই। কেবল একটাই বড় সমস্যা ‘মাদক’। আশপাশের সব এলাকার লোকজনও জানে, আমাগো কালীবাড়ী আর রাজারবাগের কথা।
সরেজমিনে দেখা গেছে, এই ওয়ার্ডের পুরোটাই যেন মাদক ব্যবসায়ীদের হাতের মুঠোয়। রয়েছে কিছু প্রসিদ্ধ স্পট। দক্ষিণ রাজারবাগে ‘সেলিনা আপার চায়ের দোকান’ তার মধ্যে অন্যতম। মসজিদ সংলগ্ন আপার এই দোকানে চায়ের সঙ্গে টাও মেলে বলে জানান স্থানীয় এক বাসিন্দা। টাকা দিলে সব ধরনের মাদকই পাওয়া যায় এখানে। এ জন্য দিনরাত ২৪ ঘণ্টাই আপার চায়ের ব্যবসা জমজমাট। আরেকজন স্থানীয় বাসিন্দা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, এ চায়ের দোকানে টিভি (টেলিভিশন) জুয়াও চলে। তাই টাকা নিয়ে প্রায়ই গ-গোল বাধে। এ নিয়ে এলাকাবাসী চরম বিরক্ত। নিয়মিত চাঁদা দেওয়ায় পুলিশও কিছু বলে না।

Check Also

অনলাইন প্রফেশনাল’স মিটআপে ২শ’ অনলাইন পেশাজীবীদের মিলনমেলা

শনিবার, ১লা সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে সকাল ৯টা থেকে দুপর ২টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে বগুড়া পৌর …

Powered by themekiller.com