ভাল না লাগলে ফেসবুক ছেড়ে চলে যান

ফেসবুক উন্নত মানের খবর পরিবেশন করতে তাদের নিউজফিডে যেসব পরিবর্তন ঘটাচ্ছে, সেগুলো বিভিন্ন জায়গার স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমগুলোকে সাহায্য করবে। কিন্তু, অন্যদের জন্য বেশ ক্ষতিকর হবে।

সোমবার প্রতিষ্ঠানটির নিউজ পার্টনারশিপ বিভাগের প্রধান ক্যাম্পবেল ব্রাউন কোড মিডিয়া কনফারেন্সে একথা জানান।

নিউজফিডের বিভিন্ন পরিবর্তন নিয়ে এখনও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করছে ফেসবুক। পরীক্ষার ফলাফল দেখে তারা যেসব সিদ্ধান্ত নেবে সেগুলোর কারনে অনেকেই ফেসবুকের সাথে কাজ না করার সিদ্ধান্ত নিতে পারেন বলে মনে করে প্রতিষ্ঠানটি।

কনফারেন্সে ব্রাউন বলেন, ‘আপনি যদি একজন প্রকাশক হন এবং মনে করেন যে ফেসবুক আপনার ব্যবসার জন্য উপকারী নয়, তাহলে আপনার ফেসবুকে থাকার দরকার নেই।’

ফেসবুক জানিয়েছে, তারা নিউজ ফিডে বিভিন্ন সাইট ও পেজের পোস্ট দেখানোর পরিবর্তে ইউজারদের বন্ধুবান্ধব ও তাদের আশেপাশের বিভিন্ন খবর বেশি দেখাবে। ইউজাররা কোন সাইটের খবর বেশি বিশ্বাস করে তা নির্ধারণ করতে বিভিন্ন জরিপেরও আয়োজন করবে।

সিএনএননের সাবেক কর্মচারী ব্রাউন বলেন, ‘সংবাদমাধ্যমগুলোর উচিত ফেসবুকের সাথে তাদের সম্পর্ক নিয়ে নতুন করে ভাবা। আমরা খবর প্রচার বন্ধ করে দিচ্ছিনা, কিন্তু প্রকাশকদের সাথে আমাদের সম্পর্ক বদলে নিচ্ছি। ফেসবুক প্রথমবারের মত একটি নির্দিষ্ট দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে মানসম্পন্ন খবর পরিবেশনের জন্য কাজ করছে।’

সম্মেলনের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘সব খবর সমানভাবে তৈরি করা হয় না। আমরা সাধারণভাবে বিশ্বস্ত প্রকাশকদের খবর বেশি দেখাব, এবং স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমগুলোর খবর বেশি দেখাব। ‘

ফেসবুকের নিউজ ফিড প্রোডাক্টের অ্যাডাম মোসেরি বলেন, ছোট আকারের প্রকাশনা সংস্থাগুলোর জন্য ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল বেশি উপযোগী হবে। নিউজ ফিডের পরিবর্তনের ফলে আগামী কয়েক মাসের মধ্যে ফেসবুকের সামগ্রিক কনটেন্টের মধ্যে খবরের পরিমাণ ৫% থেকে ৪%-এ নেমে আসবে।

বিশ্বস্ত খবরদাতা নির্বাচন করতে ফেসবুকের দুই প্রশ্নের জরিপের সমালোচনার জবাবে মোসেরি বলেন, ‘এটা তো জনপ্রিয়তার প্রতিযোগিতা নয়, বা কে সবচেয়ে বিশ্বস্ত তা নির্ধারণের জরিপ নয়। আমরা জরিপটি করছি বিভিন্ন ধরনের ইউজার কোন সংস্থার খবর বেশি বিশ্বাস করে সেটি নির্ধারণ করার জন্য। জরিপটি নির্ভরযোগ্য করতে আমরা বিভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গির মানুষের মতামত নিয়েছি।’

ব্রাউন জানিয়েছেন, মার্চের ১ তারিখ থেকে প্রকাশকদের জন্য ‘সাবস্ক্রিপশন প্রোডাক্ট’ অর্থাৎ ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেলে শুধুমাত্র গ্রাহকদের জন্য তাদের খবর পরিবেশনের ব্যবস্থা চালু করতে যাচ্ছে ফেসবুক।

এর ফলে, একজন পাঠক কোনও সংবাদ সংস্থার প্রকাশ করা কয়টি খবর ফেসবুকের ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেলে বিনামূল্যে পড়তে পারবে তা নির্ধারণ করে দিতে পারবে প্রকাশকরা। বিনামূল্যে দেয়া খবরগুলো পড়ার পর কেউ ওই প্রকাশকের আরও খবর পড়তে চাইলে তাকে পে-ওয়ালের মাধ্যমে টাকা দিয়ে তাদের খবর কিনে দেখতে হবে।

Check Also

অনলাইন প্রফেশনাল’স মিটআপে ২শ’ অনলাইন পেশাজীবীদের মিলনমেলা

শনিবার, ১লা সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে সকাল ৯টা থেকে দুপর ২টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে বগুড়া পৌর …

Powered by themekiller.com