কলকাতাতেই স্থায়ী হচ্ছেন শাকিব

ঢাকাই সিনেমার নাম্বার ওয়ান হিরো বলেই খ্যাত শাকিব খান। তিনি এখন কলকাতার সিনেমা নিয়ে ব্যস্ত। সম্প্রতি কলকাতাতেই কাটছে শাকিবের দিনরাত; মাসের ২৮ দিন সেখানেই থাকছেন। ঢাকায় আসছেন কেবল শুটিং থাকলেই। অবসরে কলকাতায় মঞ্চে মঞ্চে পারফর্ম করে বেড়ান।

কলকাতায় বাণিজ্যিক ছবির বাজার নেই। ধুকছেন ওখানকার প্রযোজক, নির্মাতা ও নায়ক-নায়িকারা। এমনি সময়ে যৌথ প্রযোজনার ‘শিকারী’ ও ‘নবাব’ ছবির সফলতার পর কলকাতার নির্মতা ও প্রযোজকরাও বাংলাদেশের সিনেমার বড় তারকা শাকিবকে নিয়ে আগ্রহী হয়ে উঠেছেন। বাংলাদেশের বাজার ধরতে বিভিন্ন নায়িকার সঙ্গে শাকিবের জুটি করে বানাচ্ছেন সিনেমা।

শাকিবও দুই বাংলার সুপারস্টার হবার বাসনায় গা ভাসিয়েছেন। যদিও দুই বছরে কলকাতার ইন্ডাস্ট্রিতে ও দর্শকের কাছে শাকিব আশানুরুপ সাড়া কোনোটাই পাননি। তাকে মূলত ঢাকায় প্রবেশের তুরুপের তাস হিসেবেই দেখছে ওপার বাংলার ‘মসলাদার’ সিনেমার সংশ্লিষ্টরা।

আগে ভরসা ছিলো যৌথ প্রযোজনা। তবে নতুন নিয়মাবলী যুক্ত হওয়ায় এই পদ্ধতিতে প্রচুর ঝামেলা পোহাতে হয়। তাই আপাতত শাকিবকে নিয়ে ওপার বাংলার নির্মাণের ছবিগুলো বাংলাদেশে আসবে দক্ষিণ এশীয় দেশগুলোর মধ্যে সম্পাদিত আন্তর্জাতিক বাণিজ্য চুক্তি সাফটার আওতায়।

অর্থাৎ, শাকিবকে তার দেশের দর্শকেরা দেখবেন আমদানি করে! যেখানে শাকিবের জন্ম সেখানকার দর্শকরা তার ছবি সাফটা চুক্তিতে কতোটা গ্রহণ করবেন সেটা আলোচনার বিষয়। তবে যে চুক্তির বিরুদ্ধে আন্দোলনে সোচ্চার ছিলেন শাকিব নিজেও সেই চুক্তিতেও তারই গা ভাসানো দেখে মুখ টিপে হাসছেন অনেকেই। স্বার্থ বুঝি অনেক কিছুই ভুলিয়ে দেয়!

Check Also

ভোল পাল্টালেন শাকিব খান!

ডিজিটালের ছোঁয়া ঢাকাই সিনেমায় লাগার পর অনেকেই আশার বীজ বুনতে শুরু করেছেন। কিন্তু অচমকাই আশনি …

Powered by themekiller.com