বিমান বিধ্বস্তে কেন ৬ কর্মকর্তাকে বদলি

নেপালের ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের এয়ার ট্র্যাফিক কন্ট্রোল (এটিসি) টাওয়ারের ছয় কর্মকর্তাকে বদলি করেছে কর্তৃপক্ষ। তারা বলছে, বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনা সরাসরি প্রত্যক্ষ করা এই ব্যক্তিদের ধাক্কা ‘সামলে ওঠার সুযোগ’ দিতেই তাদের অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়েছে। খবর মাই রিপাবলিকার।

গতকাল সোমবার ঢাকা থেকে কাঠমান্ডুগামী বাংলাদেশি একটি বেসরকারি বিমান সংস্থা ইউএস-এয়ারের বিমান বিধ্বস্ত হয়। বিমানটি অবতরণের সময় রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়লে একটি ফুটবল খেলার মাঠে বিধ্বস্ত হয়।

এ ঘটনায় চার ক্রু ও ৬৭ যাত্রীসহ বিমানটি বিধ্বস্ত হলে ৫১ জন নিহত হয়েছেন। আর বাকি ২০ জনকে স্থানীয় কেএমসি হাসপাতাল, নরভিক হাসপাতাল ও ওম হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

নেপালের বেসামরিক বিমান কর্তৃপক্ষের উপ-মহাপরিচালক রাজন পোখারেল বলেছেন, দুর্ভাগ্যজনক এমন দুর্ঘটনার পর মানসিক চাপ লাঘবের এটাই প্রচলিত নিয়ম। তারা বড় একটি বিপর্যয় প্রত্যক্ষ করেছে এবং তারা হতভম্ব। তাই তাদের সামলে উঠার সুযোগ করে দিতে অন্য বিভাগে স্থানান্তর করা হয়েছে।

তবে বিমানটির পাইলটের সঙ্গে এটিসি কর্মকর্তাদের কথোপকথন যে অডিও প্রকাশ পেয়েছে তাদের বদলির সঙ্গে এর কোনো সম্পর্ক নেই।

Check Also

এরফান গ্রুপ (রাইস ইউনিট) এর বার্ষিক ডিলার সম্মেলন -২০১৮ অনুষ্ঠিত

বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় চাল প্রক্রিয়াজাত, খাদ্যপণ্য উৎপাদন ও বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠান এরফান গ্রুপ (রাইস ইউনিট) এর বার্ষিক …

Powered by themekiller.com