একাত্তরের ৪ বছরের শিশুকেও মুক্তিযোদ্ধা রাখা হবে

মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, জাতির জন্য এটা খুবই লজ্জাজনক ও বেদনাদায়ক হচ্ছে যে এখনো অ-মুক্তিযোদ্ধারা মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকায় রয়ে গেছে। আদালতের আদেশের কারণে এসব অমুক্তিযোদ্ধাদের বাদ দেওয়া যাচ্ছে না। আদালতের স্থগিতাদেশের কারণে একাত্তরের ৪ বছরের শিশুকেও মুক্তিযোদ্ধার তালিকায় রাখতে হচ্ছে।

সোমবার বিকেলে জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে সরকার ও বিরোধী দলের সংসদ সদস্যদের একাধিক সম্পুরক প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে মন্ত্রী এভাবেই তাঁর অসহায়ত্ব প্রকাশ করেন। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এখনো ওই সকল অমুক্তিযোদ্ধাকে সরকারি ভাতা দিতে হচ্ছে। তবে আমরা আইনী লড়াই চালিয়ে যাচ্ছি। সংসদের মাধ্যমে আদালতের প্রতি আহ্বান জানাবো, যেন ওই সকল আদেশ দ্রুত পুনর্বিবেচনা ও প্রত্যাহার করা হয়।

এ সময় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এবিষয়ে সরকারি আইনজীবীদের যথাযথ দায়িত্ব পালনের নির্দেশনা দেওয়ার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, আপনার আইনজীবীকে বলুন, বিষয়টি যেন আদালতে পরিষ্কারভাবে তুলে ধরেন। প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা প্রস্তুত করতে যেন দ্রুত আদালতের মাধ্যমে বিষয়টি নিষ্পত্তি করতে পারেন।

Check Also

এরফান গ্রুপ (রাইস ইউনিট) এর বার্ষিক ডিলার সম্মেলন -২০১৮ অনুষ্ঠিত

বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় চাল প্রক্রিয়াজাত, খাদ্যপণ্য উৎপাদন ও বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠান এরফান গ্রুপ (রাইস ইউনিট) এর বার্ষিক …

Powered by themekiller.com