অপরাধ গুরুতর, সাজা ‘নামমাত্র’

নকল ওষুধ পাওয়া গেছে দেশের অভিজাত দুই হাসপাতাল ইউনাইটেড এবং অ্যাপোলোতে। রোগ পরীক্ষা করা হয় যে উপাদান (রিএজেন্ট) সেটিও মেয়াদউত্তীর্ণ পাওয়া গেছে এই দুই হাসপাতালে। আবার ব্লাড ব্যাংকের লাইসেন্স ছাড়াই রক্ত বিক্রি করার মতো গুরুতর অপরাধে সাজা পেয়েছে আরেক অভিজাত হাসপাতাল স্কয়ার।

অভিযোগ গুরুতর। কারণ ভেজাল ওষুধ আর মেয়াদউত্তীর্ণ রিএজেন্টে রোগ পরীক্ষায় কত রোগীর মৃত্যু বা কত রোগী ভুগেছে, সেটি জানার উপায় নেই। অথচ এসব অভিযোগে হাসপাতালগুলোকে জরিমানা করা হয়েছে সর্বনিম্ন দুই লক্ষ ৬৫ হাজার থেকে সর্বোচ্চ ২০ লাখ টাকা।

আবার অ্যাপোলোতে ভেজাল ওষুধ ও মেয়াদউত্তীর্ণ রিএজেন্ট পাওয়া গেছে দুইবার। রীতি অনুযায়ী একই অপরাধ দুইবার করলে সাজা হওয়ার কথা প্রথমবারের তুলনায় অনেক বেশি। কিন্তু অ্যাপোলোর ক্ষেত্রে সেটা হয়েছে উল্টো।

একজন চিকিৎসক বলেন, ‘নামি প্রতিষ্ঠানগুলোতে একটি সাধারণ সমস্যা দেখা যাচ্ছে, সেটা হলো রিএজেন্টগুলো মেয়াদউত্তীর্ণ। এর দাম তো খুব বেশি নয়। তার মানে এটা তারা ইচ্ছা করেই করছে।’

Check Also

ডুমিনির পরিবর্তে একাদশে ফিরছেন মোস্তাফিজ

চলতি মৌসুমের শুরুটা ভালো হয়নি মুম্বাইয়ের। টানা হারে এক সময় মনে হচ্ছিল হয়তো গ্রুপ পর্ব …

Powered by themekiller.com