প্রেম-বিয়ে, ওটা কী! ছি ছি!

চুটিয়ে প্রেম করবে, গোপনে বিয়ে করবে, এরপর লুকিয়ে বিচ্ছেদেরও সিদ্ধান্ত নেবে—কিন্তু কেউ জানতে পারবে না, সংবাদমাধ্যমে লেখা তো দূরের কথা, এমন মানসিকতা বাংলাদেশের এ সময়ের অনেক নায়ক-নায়িকার। টেলিভিশন আর গানের জগতের মানুষেরা এ ক্ষেত্রে কোনো অংশে পিছিয়ে নেই। বরাবরই তারাকারা প্রেম-বিয়ের খবর গোপন রাখার চেষ্টা করেন। কেউ তো আবার এককাঠি সরেস, বিয়ে-শাদি করে দিব্যি সংসার চালিয়ে যাচ্ছেন, এত কিছুর পরও বুলি আওড়ান—এখনো তাঁরা বিয়েই করেননি। পছন্দসই পাত্র-পাত্রী পেলে তবেই বিয়ের কাজটি সেরে নেবেন। আর প্রেমের সম্পর্কের ক্ষেত্রে তারকাদের একটা কমন কথা হচ্ছে, ‘উই আর জাস্ট ফ্রেন্ড।’ আবার অনেকে আরও বলেন, প্রেম বিয়ে? ওটা কী! ছি ছি! কাজ করেই শেষ করতে পারছি না, প্রেম-বিয়ে করার সময় কেথায়!

সাম্প্রতিক সময়ে ঢালিউডে সবচেয়ে আলোচিত গোপন প্রেম-বিয়ের ব্যাপার এলেই সামনে চলে আসবে শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের নাম। আট বছরের বেশি সময় সংসার চালিয়ে যাওয়া এই দুই নায়ক-নায়িকা সন্তান জন্মের পরও নিজেদের সংসারের কথা গোপন রাখেন। এরপর হঠাৎ করে গত বছর ১০ এপ্রিল একটি বেসরকারি টেলিভিশনে সন্তানসহ হাজির হন অপু বিশ্বাস। সরাসরি সম্প্রচারিত সেই অনুষ্ঠানে অপু বিশ্বাস জানান, ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল শাকিবের সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয় আর ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর ভারতের কলকাতার একটি হাসপাতালে তাঁদের ছেলের জন্ম হয়। যদিও ওই দিনটির আগে পর্যন্ত অপু বিশ্বাসকে যতবার জিজ্ঞেস করা হয়েছিল, শাকিবের সঙ্গে তাঁর বিয়ের কথা ততবারই হেসে উড়িয়ে দেন তিনি।

শাকিব আর অপুর বিয়ের খবর প্রকাশিত হওয়ার পর বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আলোচনার ঝড় বইতে থাকে। বাংলাদেশি চলচ্চিত্রের এ সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় নায়কের বিয়ের খবর প্রকাশের পর দেশের বাইরে থাকা বাংলা ভাষাভাষী মানুষের মধ্যেও ছিল ব্যাপক আলোচনা। এক যুগেরও বেশি সময় ধরে এই নায়কের কাঁধে ভর করে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র। এখন তিনি পাশের দেশ ভারতেও তাঁর জনপ্রিয়তার বিস্তার করছেন।

Check Also

ভোল পাল্টালেন শাকিব খান!

ডিজিটালের ছোঁয়া ঢাকাই সিনেমায় লাগার পর অনেকেই আশার বীজ বুনতে শুরু করেছেন। কিন্তু অচমকাই আশনি …

Powered by themekiller.com