চাঁদপুরে সিএনজি থেকে পড়ে মায়ের মৃত্যু : ছেলে আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

চাঁদপুর সদর উপজেলা চান্দ্রা ইউনিয়নে মানসিক ভারসাম্যহীন ছেলেকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়ার সময় এক মায়ের করুন মৃত্যু হয়েছে। রবিবার সকাল সাড়ে ৭টায় এ মৃত্যুর ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় চাঁদপুর মডেল থানা পুলিশ ছেলে শামীম গাজী (২৫) কে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। নিহত শাহানারা বেগম (৪০) চান্দ্রা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের গাজী বাড়ির হুমায়ুন গাজীর স্ত্রী। ৩ ভাই ১ বোনের মধ্যে শামিম সবার বড়।
নিহতের মেঝ ছেলে তুহিন জানায়, আমার বড় ভাই মো. শামীম গাজী (২৫) দীর্ঘ ২ বছর যাবত মানসিক রোগে আক্রান্ত। আমি ও আমার মা সকালে বড় ভাইকে নিয়ে কুমিল্লা নাঙ্গলকোর্ট এলাকার মানসিক রোগের চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়ার জন্য সিএনজি স্কুটারযোগে রওনা হই। চান্দ্রা ইউনিয়নের মদিনা মার্কেটের সামনে পর্যন্ত আসলে শামীম গাজী চলন্ত সিএনজি স্কুটার থেকে লাফিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। পরে তাকে বাঁচানোর জন্য আমার ও মায়ের সাথে দস্তাদস্তি শুরু হলে মা সিএনজি থেকে পড়ে গিয়ে মাথায় মারাত্মকভাবে আঘাত প্রাপ্ত হন।
সে আরো জানায়, আমার চিৎকারে সিএনজি চালক গাড়ী থামালে আমি মাকে নিয়ে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে চলে আসি। এ সময় শামীম সিএনজি থেকে লাফিয়ে পালিয়ে যায়। মাকে হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।
এদিকে চান্দ্রা এলাকায় স্থানীয় লোকজন জানায়, মানসিক রোগে আক্রান্ত ও নেশাগ্রস্থ শামীম গাজীকে চিকিৎসার জন্য সিএনজি স্কুটার যোগে নিয়ে যাওয়ার সময় সে তার মাকে গাড়ী থেকে ধাাক্কা মেরে ফেলে দিলে তার মৃত্যু হয়।
এ বিষয়ে চান্দ্রা ইউপি চেয়ারম্যান খান জাহান আলী কালু জানান, হুমায়ুন গাজীর বড় ছেলে শামীম গাজী এক সময় ৫ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করত। গত বছর দুয়েক ধরে নেশাগ্রস্থ যুবকদের সাথে মিশে সে মানসিক রোগে আক্রান্ত হয়ে যায়। ঘটনার দিন তার মা তাকে নিয়ে কুমিল্লা নাঙ্গলকোার্ট যাওয়ার পথে শামীম গাড়ী থেকে পালানোর চেষ্টা করলে তার মা তাকে ধরতে গেলে গাড়ী থেকে পড়ে আহত হয়। হাসপাতালে নেওয়ার পর তার মৃত্যু হয়। আমরা মানসিক রোগী শামীম গাজীকে মদিনা মার্কেট এলাকার বিল্লাল খার হ্যাচারীর সামনে থেকে গ্রাম পুলিশের মাধ্যমে ধরে এনে ইউনিয়ন পরিষদে রাখি। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে শামীম গাজীকে পুলিশের কাছে সোপর্দ্দ করা হয়।
চাঁদপুর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক হাবিবুর রহমান জানান, আমরা খুনের ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছি। পরবর্তীতে জানা যায়, মানসিক রোগে আক্রান্ত শামীম গাজীকে নিয়ে তার মা ও ছোট ভাই চিকিৎসা করানোর জন্য কুমিল্লা নাঙ্গলকোর্টে যাচ্ছিল। সিএনজি থেকে পালানোর চেষ্টা করলে তার মা তাকে ধরতে গিয়ে গাড়ী থেকে পরে আহত হয়। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। স্থানীয়দের অভিযোগের কারণে আমরা লাশ ময়না তদন্তের জন্য চাঁদপুর মর্গে প্রেরণ করেছি। মানসিক রোগে আক্রান্ত শামীম গাজীকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এ বিষয়ে চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) জানায়, এ বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে।

Check Also

হাজীগঞ্জ দ্বাদশ ইউনিয়নে জমি বিরোধের হামলায় কলেজ শিক্ষার্থীসহ ৩ জন আহত

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার ১২ নং দ্বাদশ ইউনিয়নে জমি সংক্রান্ত বিরোধের সংঘর্ষের ঘটনায় কলেজ শিক্ষার্থীসহ ৩ …

Powered by themekiller.com